শিশু নিরাপত্তা বীমা লাভসহ

সন্তানের ভবিষ্যত গড়ার লক্ষ্যকে সামনে রেখে এনআরবি গ্লোবাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড  “শিশু নিরাপত্তা বীমা” নামে একটি আকর্ষণীয় বীমা পরিকল্প প্রণয়ন করেছে। এটি একটি বৃত্তিমূলক বীমা।  পিতার অবর্তমানে শিশুটি বার্ষিক বৃত্তি পাওয়ার সুযোগ রয়েছে।  বীমা যুগ্মভাবে প্রিমিয়াম দাতা ও শিশু জীবনের উপর নেয়া হয়।  সাধারণত: শিশুর পিতা প্রিমিয়ামদাতা হিসাবে বিবেচিত হয়।  তবে শিশু পিতা যদি জীবিত না থাকেন অথবা বীমা গ্রহণের অযোগ্য বলে বিবেচিত হন তাহলে শিশুর মাতা প্রিমিয়ামদাতা হতে পারেন।  তবে সে ক্ষেত্রে শিশুর মাতাকে অবশ্যই শিক্ষিতা এবং কর্মজীবি হতে হবে।  পিতা/মাতা ভিন্ন অন্য কেউ প্রিমিয়ামদাতা হতে পারবেন না। 
 
সুবিধাসমুহ ঃ-

১. বীমা চলাকালীন সময়ে প্রিমিয়ামদাতা মৃত্যুবরণ করলে উক্ত পলিসির বাকী মেয়াদের জন্য আর কোন প্রিমিয়াম দিতে হবে না।  এবং শিশুকে নিম্নোক্ত সুবিধাদি প্রদান করা হয়।
২. প্রতি হাজার টাকা বীমা অংকের জন্য ১০ (দশ) টাকা হারে বার্ষিক বৃত্তি প্রদান করা হয়। যা পলিসির মেয়াদপূর্তি পর্যন্ত চলবে।
৩. এবং পলিসি মেয়াদ শেষে বীমা অংকের উপর অর্জিত লাভসহ সম্পূর্ণ বীমা প্রদান করা হয়।
৪.  যদি পলিসি চলাকালীন সময়ে শিশু মৃত্যুবরণ করে তাহলে প্রিমিয়ামদাতা নিম্নোক্ত হারে বীমাঅংকের টাকা পাবেন।
শিশুর মৃত্যুকালে পলিসি মেয়াদ প্রাপ্ত সুবিধা
৬ (ছয়) মাসের অধিক নয় বীমা অংকের ২৫%
৬ মাসের অধিক কিন্তু ১২ মাসের মধ্যে বীমা অংকের ৫০%
১২ মাসের অধিক কিন্তু ২৪ মাসের মধ্যে বীমা অংকের ৭৫%
২৪ মাসের অধিক বীমা অংকের ১০০%
 
৫. প্রিমিয়াম দাতা এবং শিশু পলিসির মেয়াদপূর্তি পর্যন্ত বেঁচে থাকলে মেয়াদ শেষে সম্পূর্ণ বীমা অংক অর্জিত লাভসহ বীমা গ্রাহককে প্রদান করা হয়।
৬. প্রিমিয়ামদাতার মৃত্যুর পর শিশুর বৃত্তি চলাকালীন সময়ে যদি শিশুর মৃত্যু ঘটে সে ক্ষেত্রে বৃত্তি প্রদান বন্ধ হবে এবং বীমার মেয়াদ শেষে অর্জিত লাভসহ সম্পূর্ণ বীমা অংক পলিসিতে উল্লেখিত মনোনীতককে প্রদান করা হবে। তবে টাকা প্রদানের ক্ষেত্রে কোন প্রকার সমস্যা দেখা দিলে মুসলিম ফারায়েজ আইন মোতাবেক উত্তরাধিকারদেরকে প্রদান করা হবে।
৭. একসাথে প্রিমিয়ামদাতা এবং শিশু মৃত্যুবরণ করলে পলিসিতে উল্লেখিত মনোনীতককে বীমা অংক অর্জিত লাভসহ প্রদান করা হবে। 
৮. এই পরিকল্পে প্রদত্ত প্রিমিয়ামের উপর আয়কর রেয়াত পাওয়া যায়। বীমা দাবীর টাকাও আয়কর মুক্ত।

 
শর্তাবলী ঃ-
১. এই বীমায় পলিসি গ্রহণকালীন শিশুর বয়স সর্বনিম্ন ১ (এক) বছর এবং সর্বোচ্চ ১৪ (চৌদ্দ) বছর পর্যন্ত হবে।
২. মেয়াদপূর্তিকালীন শিশুর বয়স ১৮ (আঠার) বছরের কম এবং ২৫ বছরের বেশী হবে না।
৩. এই পরিকল্পের সাথে কোন সহযোগী বীমা গ্রহণ করা যায় না।
৪. প্রস্তাবপত্রের সাথে শিশুর স্বাস্থ্য সম্পর্কিত অতিরিক্ত বিবৃতি দাখিল করতে হয়।
 
 

Log In
Policy Holder Login Organizer Login Employee Login
আপনার যে কোন তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন- HOTLINE: +8801880171717/ +8802-9587734-37/- Website is Renovated.